আজ- বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

জায়েদ খানকে বয়কট: চলচ্চিত্রাঙ্গনে মতানৈক্য

সত্যবার্তা ডেস্ক:

 

চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ১৮ সংগঠন চিত্রনায়ক জায়েদ খানকে বয়কট করেছে। শনিবার (৫ মার্চ) জরুরি এক বৈঠকের পর জায়েদ খানকে চলচ্চিত্রের সার্বিক কাজে বয়কট করার ঘোষণা দেওয়া হয়।

কিন্তু এই বৈঠকে আমন্ত্রণ পাননি শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন। কেন এই জীবন্ত কিংবদন্তিকে আমন্ত্রণ করা হয়নি এর ব্যাখ্যা দিয়েছেন পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান। অন্যদিকে পুরো বিষয়টি নিয়ে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন বরেণ্য ব্যক্তিত্ব ইলিয়াস কাঞ্চন। এদিকে প্রদর্শক সমিতিও বিষয়টি নিয়ে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেছে।

আদালতের রায় মেনে জায়েদ খানকে শপথ বাক্য পাঠ করিয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চন। তা জানিয়ে এই চিত্রনায়ক বলেন, ‘জায়েদ বা নিপুণ কেউ আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ সংগঠনের ভাবমূর্তি সমুন্নত রাখা। আদালত যে রায় দিয়েছেন সেটা জায়েদ খানের পক্ষে গেছে। কোর্টের সার্টিফাইড কপি দেখেই কিন্তু জায়েদ খানকে শপথ গ্রহণ করিয়েছি। এখন কে বা কোন সংগঠন ওকে পছন্দ করলো না সেটা আমার বিষয় না। আদালতের রায় মানতে আমি বাধ্য। সেই কাজটি-ই করেছি। ব্যক্তিকে ইস্যু করে শিল্পী সমিতিকে দূরে ঠেলে দেওয়াটা দুঃখজনক।’

 

১৮ সংগঠনের বৈঠকে না থাকার কারণ ব্যাখ্যা করে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘প্রত্যেকটা সমিতি তার নিজস্ব গঠনতন্ত্র দিয়ে চলে, এখানে কারো ওপর কারো খবরদারি সম্পর্কের অবনতি ঘটাবে। তারা শিল্পী সমিতিকে ডাকলে অবশ্যই যেতাম। কিন্তু আমার এ অবস্থায় আমি চাইবো বিভেদ ভুলে একসঙ্গে কাজ করার, না হলে ইন্ডাস্ট্রি আরো তলানিতে যাবে। আমরা আরো মানুষের হাসির পাত্র হবো।’

চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, শিল্পী সমিতি, নৃত্য পরিচালক সমিতি, চিত্রগ্রাহক সমিতি, এডিটর গিল্ড, ফাইট ডিরেক্টরদের সমিতি, সহকারী পরিচালকদের সমিতি, মেকআপম্যানদের সমিতি, প্রোডাকশন ম্যানেজার সমিতিসহ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট মোট ১৮টি সংগঠন নিয়ে এই পরিবার। এতে নতুন করে যুক্ত হয়েছে প্রদর্শক সমিতি। প্রযোজক সমিতি বিলুপ্ত থাকায় সংস্থাটির পক্ষ থেকে কেউ উপস্থিত না হলেও প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খসরু, শামসুল আলমের উপস্থিতির খবর পাওয়া গেছে।

 

নতুন অন্তর্ভূক্ত প্রদর্শক সমিতির পক্ষে সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন উজ্জলের নেতৃত্বে প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস এবং রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে আগামী ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালনে ঐক্যমত হয় সকল সমিতি। এ সময় প্রদর্শক সমিতিও তাতে সায় দেয়।

১৮ সমিতির একটি শিল্পী সমিতি, তাদের কাউকে ডাকা হয়নি, হঠৎ এমন দৃশ্য কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘আমরা জায়েদ খানকে বয়কট করেছি। ইলিয়াস কাঞ্চন ভাইকে বলেছিলাম কোটের সার্টিফাইড কপি না পাওয়া পর্যন্ত শপথ না পড়াতে। কিন্তু উনি শোনেন নি। তাই পরিবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যতক্ষণ পর্যন্ত জায়েদ খান থাকবে শিল্পী সমিতিকে বাদ দিয়ে সকল কিছু হবে।’

১৮ সংগঠনের এই সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছেন পরিচালক সমিতির মহাসচিব শাহীন সুমন। তিনি বলেন, ‘বৈঠক হবে সেটা জানি কিন্তু জায়েদ খানকে ইস্যু করে শিল্পী সমিতিকে ডাকা হবে না, এটা দুর্ভাগগ্যজনক। তাদের এমন সিদ্ধান্তের সঙ্গে আমি একমত নই।’

সুত্র সংগৃত:

 

 

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর

সাক্ষাৎকার