আজ- রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

টিসিবির পণ্যের জন্যেও হাহাকার জনমানুষের :

সত্যবার্তা ডেক্স  :

 

টিসিবির পণ্যের জন্যেও হাহাকার জনমানুষের

ভোজ্যতেলের দাম নিয়ন্ত্রণে প্রতিবেশী দেশ ভারত তিনবার শুল্ক ও ভ্যাট সমন্বয় করেছে। বাংলাদেশেও ভ্যাট প্রত্যাহার করা উচিত বলে মনে করেন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। ভোজ্যতেলের বাজার পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল সোমবার দুপুরে এফবিসিসিআই আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি বলেন, ঘাটতি না থাকার পরও সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানো অস্বাভাবিক। গুটি কয়েক অসাধু ব্যবসায়ীর জন্য পুরো ব্যবসায়ী সমাজের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে। অসৎ ব্যবসায়ীদের সতর্ক করে তিনি বলেন, এফবিসিসিআই এসব ব্যবসায়ীর দায় নেবে না।

 

 

আগামী তিন মাসের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যের ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি জানান জসিম উদ্দিন। একই সঙ্গে ব্যবসায়ীদের তেল মজুত না করতে ও সরকারি নির্ধারিত দামে তেল বিক্রি এবং মিল মালিকদের সরবরাহ ঠিক রাখার জন্য আহ্বান জানান তিনি। বাজার নিয়ন্ত্রণে এফবিসিসিআইর পক্ষ থেকে একটি মনিটরিং সেল গঠনেরও ঘোষণা দেন সভাপতি।

 

 

এর আগে মেঘনা গ্রুপের সিনিয়র এজিএম তাসলিম শাহরিয়ার জানান, গত এক বছরে বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়েছে ৬১ শতাংশ। একই সময়ে দেশের বাজারে মূল্য বৃদ্ধির হার ২১ শতাংশ। সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা জানান, মিল মালিকদের পক্ষ থেকে বাজারে সরবরাহের কোনো ঘাটতি নেই। প্রতিদিন সিটি গ্রুপের কারখানা থেকে দুই থেকে আড়াই হাজার টন তেল সরবরাহ করা হচ্ছে। বাজার নিয়ন্ত্রণে কোরবানি পর্যন্ত ভোজ্যতেলের ওপর ভ্যাট প্রত্যাহারের আহ্বান জানান তিনি। এস. আলম গ্রুপের সিনিয়র

 

 

মহাব্যবস্থাপক কাজী সালাহউদ্দিন আহাম্মদও এনবিআরকে ভ্যাট প্রত্যাহারের আহ্বান জানান। একই দাবি জানিয়ে টিকে গ্রুপের পরিচালক শফিউল তাছলিম বলেন, প্রতি লিটার সয়াবিন তেলে সরকার ২৫ থেকে ২৭ টাকার রাজস্ব পায়। বর্তমান সময়ে এই রাজস্বে ছাড় দিলে রমজান পর্যন্ত তেলের বাজারে কোনো সংকট থাকবে না।

 

 

পাইকারি ভোজ্যতেল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হাজি মো. গোলাম মাওলা জানান, মিলগেটে অপেক্ষার জন্য একেকটি ট্রাক বাবদ দৈনিক ৫ হাজার টাকা ভর্তুকি দিতে হয়। মিল মালিকদের প্রতি তেলের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার আহ্বান জানান তিনি। অন্যদিকে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন প্রতি ১৫ দিনে একবার তেলের দাম নির্ধারণের পরামর্শ দেন।
মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- এফবিসিসিআইর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, সহসভাপতি মো. হাবীব উল্লাহ ডন, পরিচালক রেজাউল করিম রেজনু, হারুন অর রশীদ, আবু হোসাইন ভুঁইয়া (রানু), মহসচিব মোহাম্মদ মাহফুজুল হক, মৌলভীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. বশির উদ্দিনসহ অন্যরা।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর