আজ- বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

নাজিরপুর ইউনিয়ন বাসি কে ঈদুল-আযহার শুভেচ্ছা জানালেন সাবেক চেয়ারম্যান লাবু।

নাটোর (গুরুদাসপুর উপজেলা প্রতিনিধি:

মোঃ তানভীর রহমান :

নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার ১নং নাজিরপুর ইউনিয়নের সকল শ্রেণি-পেশার সাধারণ মানুষ সহ সকল মুসলমান ভাই ও বোনদের কে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপির পক্ষ থেকে পবিত্র ঈদুল-আযহার শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান, রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ স্বর্ণপদক প্রাপ্ত নাজিরপুর ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যান ও গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সদস্য জনাব শওকত রানা লাবু।

 

তিনি নাজিরপুর ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকার মানুষের কাছে তিনি একজন সৎ, নিষ্ঠাবান, পরোপকারী ও জনদরদি রাজনীতিবিদ। যিনি অনেক বাধা ও প্রতিবন্ধকতা টপকে একজন সফল ব্যক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। শুধু তাই নয় তিনি নাজিরপুর ইউনিয়নের আলোর মুখ, সুদ, ঘুষ, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ মাদকের বিরুদ্ধে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর এবং আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা। নাজিরপুর ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন শওকত রানা লাবু।

 

তার পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন, তিনি যুবসমাজের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য এবং আগামী দিনের জন্যও জনগণের জয়লাভের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এবং আগামী দিনে নাজিরপুর ইউনিয়ন বাসির জন্য যা যা করা প্রয়োজন তাই করবেন বলে জানান শওকত রানা লাবু।

নাজিরপুর ইউনিয়নের স্থানীয় খেটে খাওয়া, গরীব দুঃখী অসহায় এবং হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তার নিরন্তর প্র‍য়াস সব মহলেই প্রশংসা ছড়িয়ে পড়েছে তিনি জনসেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়ন সহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডে নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন।

তিনি পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা বার্তায় জানান, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়ন সহ সর্বস্তুরের জনগণকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

 

আমাদের ধর্মীয় প্রধান দুটি উৎসব ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহা। ঈদুল ফিতরের উৎসব কাটানোর কিছু দিন পরেই ঈদুল আজহা নিয়ে আসে সব শ্রেণি পেশার মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ প্রস্তুতি যার ফলে ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে তৈরি হয় ঐক্যের বন্ধন।

 

ঈদুল আজহার আগমনে মহিমান্বিত হয়ে শান্তি শৃঙ্খলায় ভরে উঠুক প্রতিটি পরিবার ও বিশ্ব সমাজ। দেশপ্রেম, ভালোবাসা ও একে অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে গড়ে উঠুক প্রতিটি মানব হৃদয়ে। আসুুন সমাজের ধনী-গরীব, ধর্ম-বর্ণ, গোত্র, জাতি গোষ্ঠী সম্প্রদায় নির্বিশেষে সবাই পারস্পরিক সহযোগী ও সহমর্মিতার মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহার খুশি ভাগাভাগি করে নেই।

পরম করুনাময় সৃ‌ষ্টিকর্তার কাছে আমি প্রার্থনা করি মানুষের জীবন থেকে দূর হোক সকল মহামারী, সুখ ও সমৃদ্ধির ধারায় প্রবাহিত হোক বিশ্বে। মহান রাব্বুল আলামিন যারা হজ্জ্বে গেছেন তাদের হজ্জ্ব, যারা কুরবানি দিচ্ছেন তাদের কুরবানি এবং আমাদের সকলের সকল আমল, ইবাদত, দান সাদাকা এবং সকল সৎকর্ম কবুল করুন।

 

তিনি আরো বলেন, পশু কোরবানির বর্জ্য ময়লা যেখানে-সেখানে ফেলে আসবেন না কারণ যেহেতু প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে বর্জ্য ময়লা বৃষ্টির পানিতে মিশে গেলে যেকোনো বালাই সাধারণ মানুষের মাঝে হতে পারে সেজন্য একটি গর্ত করে গর্তের ভিতর ময়লা ফেলে একটু কষ্ট করে উপরে মাটি চাপা দিয়ে দিবেন।

 

ত্যাগের মহিমায় মহিমান্বিত হোক শান্তি প্রিয় সকল মানুষের প্রাণ। পবিত্র ঈদুল আজহার আনন্দ ছড়িয়ে পড়ুক সর্বস্তরে, সকলের জন্য রইলো প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভকামনা।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর

সাক্ষাৎকার