আজ- বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

নাটোরে আবারো শুরু হয়েছে ফসলি জমি কেটে পুকুর খননের মহা উৎসব।

সত্যবার্তা ডেস্ক:

নাটোর জেলায় আবারো ৩ ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করার মহা উৎসব শুরু হয়েছে। যেখানে স্বয়ং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দিয়েছেন যেন এক ইঞ্চি জমিও ফাঁকা না থাকে, যে কোন ফসল উৎপাদন করার জন্য। কিন্তু বাস্তব চিত্র হচ্ছে দেদারসে ফসলি জমি নষ্ট করে পুকুর খনন করা হচ্ছে।

 

সরজমিনে গিয়ে জানা যায় যে, নাটোরের বিভিন্ন বিল অঞ্চলে ৩ ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করা হচ্ছে এবং এদের কোন অনুমোদন নেই। তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পের নামে ও গোরস্থান, মসজিদ, মাদ্রাসার নামে এই ফসলি জমির মাটি খনন করা হচ্ছে।

 

গতকাল (বুধবার) নাটোর সদর উপজেলার হালসা ইউনিয়নের বাগরুম গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, জৈনক মোঃ আব্দুল সাত্তার এর পূর্বের একটি পুকুর খনন করা আছে এবং ওই পুকুর ঘেসে আবারো নতুন করে ৩ ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করা হচ্ছে। এই ফসলি জমি খনন করার মাস্টারমাইন্ড সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ শফির সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, হালসা ইউনিয়ন ভূমি অফিস ও এসিল্যান্ড অফিস এবং ইউএনও অফিস থেকে তাদের অনুমোদন নেওয়া আছে।

 

স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিলের ৩ ফসলি জমি কেটে পুকুর খনন করে যাচ্ছে একটি চক্র। এবং বিলের মধ্যে দিয়ে আরো ফসলি জমি নষ্ট করে ট্রাক্টর দিয়ে নিয়ে যাচ্ছে মাটি। তারা এই মাটি খেকোদের হাত থেকে রক্ষা পেতে চায়, এই জন্য নাটোরের জেলা প্রশাসক মোঃ শামীম আহমেদ এর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর

সাক্ষাৎকার