আজ- বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

সিংড়ায় মারপিট মামলায় ছাত্রলীগ-স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৯ নেতাকর্মী জেলহাজতে।

সত্যবার্তা ডেস্ক:

নাটোরের সিংড়ার চৌগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের বর্ধিত সভায় যোগদান করাকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আল জামী জজ ও আওয়ামী লীগ কর্মী রুহুল আমিনকে মারপিট মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল পারভেজ, চৌগ্রাম ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলমসহ ৯ নেতাকর্মীকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

 

সোমবার (২৭ মার্চ) সকালে আমলী আদালত (সিংড়া) বিচারক মোসলেম উদ্দিন তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

 

মামলা সূত্র জানা যায়, গত ২২ মার্চ চৌগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের বর্ধিত সভা ছিল। যথারীতি সভা শুরু হয়। এসময় উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সভার কার্যক্রম চলাকালীন সময়ে স্থানীয় চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলার ভাগিনা মিঠুনসহ তার নেতৃত্বে ১০/১২ জন চৌগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আল জামী জজ ও আওয়ামী লীগ কর্মী রুহুল আমিনকে বেধড়ক মারপিট করে। এসময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয় তাদের। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এসময় ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ- সভাপতি মিঠুন আলীকে আটক করে পুলিশ।

 

পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ কর্মী রুহুল আমীনের বাবা বায়জিদ বাদী হয়ে সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবু বক্কর সিদ্দিককে প্রধান আসামি করে ২১ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত ১৪/১৫ জনের নামে মামলা দায়ের করে। সেই মামলায় রোববার আসামিরা আমলী আদালত (সিংড়া) বিচারক মোসলেম উদ্দিনের আদালতে হাজিরা দেন। এসময় বিচারক উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিমুল পারভেজ, চৌগ্রাম ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলম, ছাত্রলীগ কর্মী সাগর হোসেন, সাব্বির হোসেন, কাফি, পাপ্পু, মিন্টু ও মনির হোসেনকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

 

এদিকে, নিজদলের নেতাকর্মীকে মারপিট এবং দলীয় আচরণ বিধি পরিপন্থি কাজ করায় সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আবু বক্কর সিদ্দিক, চৌগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সুমন, চৌগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আসিফ নেওয়াজ আগুন, সহ-সভাপতি নাহিদ আলী, প্রান্তি আহমেদ সাকিব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কাফি, রাকিবুল হাসান রিপন ও সদস্য সাব্বির হোসেনকে ৭দিনের কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী ৭ দিনের মধ্যে স্ব শরীরে উপস্থিত হয়ে কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব দেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন স্ব স্ব সংগঠনের প্রধানরা।

 

সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমীন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, উপযুক্ত কারণ দেখাতে না পারলে তাদের দল থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

 

এর আগে, সিংড়া উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলী এবং সহ-সভাপতি গোলাম রাব্বানী মিঠনকে দল থেকে অব্যাহত দেওয়া হয়।

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর

সাক্ষাৎকার