আজ- বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Shotto Barta Logo

শিরোনাম

২১শে আগষ্টের নীলনকশা ছিলো জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার নকশা – পলক 

সিংড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃ

আলিফ বিন রেজা

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগষ্ট এবং ২১ আগষ্ট একই সুত্রে গাথা।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাত্র সাড়ে তিন বছরে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ কে গঠনের জন্য কাজ করেছেন। তিনি যদি আর ১০ টি বছর বেঁচে থাকতেন তাহলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত হতো। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এদেশ যাতে এগিয়ে না যেতে পারে সেজন্য স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারকে হত্যা করা হয়েছিলো। ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার নীলনকশা। বিএনপি জামায়াত জোট সরকার আওয়ামী লীগ তথা বাংলাদেশ কে নেতৃত্ব শূন্য করার পরিকল্পনা করেছিলো। আমরা হারিয়েছিলাম আইভি রহমান সহ অনেক নেতাকর্মীকে। মহান আল্লাহ পাক জননেত্রী শেখ হাসিনাকে রক্ষা করেছিলেন। ঘাতকরা আজ বাংলাদেশ কে অস্থিতিশীল করার পায়তারা করছে। 

 

তিনি আরো বলেন, রাজনীতির চরিত্র হনন করেছে জিয়া। বিএনপি জোট এখনো তৎপর। বিএনপি সরকার যেভাবে আমাদের নেতাকর্মী হত্যার করেছে। তার বিচার করতে হবে।তাদের ষড়যন্ত্র রাজপথে মোকাবেলা করতে হবে। লন্ডনে বসে তারেক রহমান বাংলাদেশ কে আবারো জঙ্গিবাদের রাষ্ট্রে পরিনত করার ষড়যন্ত্র করছে। ২০৪১ সাল নাগাদ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে নেতাকর্মী সহ সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হবার আহবান জানান। 

 

রবিবার বিকেল ৪ টায় সিংড়া পৌরসভার বাসটার্মিনালে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখেন নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি ।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুল কুদ্দুস এমপি বলেন, ২১ আগষ্ট বিএনপি, তৎকালিন প্রশাসন, নীলনকশা ছিলো জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করা। ৭৫ থেকে আওয়ামী লীগের বহু নেতাকর্মীদের হত্যা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগকে বারবার হারানোর ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। কিন্তু ঘাতকরা পারেনি। ২১ শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় আমরা খবর পেলাম আমাদের নেত্রীর উপর হামলা করা হয়েছে। আমরা সেদিন সিংড়ায় মিছিল করলাম। আমাদের উপরও হামলা হলো। মামলা হলো। আমি হলাম ১ নং আসামী। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত হয়েছে। এখনো ষড়যন্ত্র হচ্ছে। সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে হবে। বাংলাদেশের ১ ইন্চি মাটিও বিএনপির কাছে ছেড়ে দিবো না। রাজপথে মোকাবেলা করা হবে। 

 

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুর্তজা বাবলু, সিংড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক, আওয়ামী লীগ নেতা বিশ্বনাথ দাস, এডভোকেট জিল্লুর রহমান প্রমুখ।

 

শেয়ার করুন :

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

এই রকম আরোও খবর

সাক্ষাৎকার